শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত স্মৃতিসৌধ

শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত স্মৃতিসৌধ

আগামীকাল ১৬ ডিসেম্বর। মহান স্বাধীনতা দিবস। বাঙালি জাতির হাজার বছরের শৌর্যবীর্য এবং বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় দিন। বীরের জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করার দিন। পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে একটি স্বাধীন ভূখন্ডের নাম জানান দেয়ার দিন।

দিনটি উপলক্ষে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে ইতিমধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধ। যদিও করোনার কারণে এ বছর মার্চ মাস থেকে বন্ধ রয়েছে স্মৃতিসৌধ। যে কারণে বাতিল করা হয়েছিল ২৬ মার্চের সব কার্যক্রম। দীর্ঘদিন পরে বিজয় উদযাপনে ফের খুলে দেওয়া হচ্ছে স্মৃতিসৌধ। তবে সামাজিক দূরত্ব ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে কর্তৃপক্ষ থাকবে সতর্ক।

বরাবরের মত দিবসটির প্রথম প্রহরে জাতির বীর সন্তানদের উদ্দেশে বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, রাজনীতিবিদ, কূটনীতিকসহ বিশিষ্ট জনেরা। এরপর খুলে দেওয়া হবে সর্বস্তরের মানুষের জন‌্য। বিজয় উদযাপনে প্রতি বছরের মতো এবারও সেজে উঠেছে স্মৃতিসৌধ।

এরইমধ্যে পুরো স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণ ধুয়ে মুছে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। বর্ণিল ফুলের চারা রোপণ ও রঙ তুলির আঁচরে সাজিয়ে তোলা হয়েছে পুরো সৌধ চত্বর। লাল, নীল, হলুদ বাতির ঝলকানিতে রাতের আকাশেও জানান দিচ্ছে বিজয়ের স্বাদ। এছাড়া, নিরাপত্তার জন্য সৌধ এলাকায় সিসি ক্যামেরা লাগানোর কাজও সম্পন্ন করা হয়েছে।

জানা গেছে, বিজয় দিবসকে সামনে রেখে গত ১৫ দিন ধরেই পুরো সৌধ এলাকায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্য বর্ধনের কাজ করছেন গণপূর্ত বিভাগের ৬৫ জনসহ বাইরের প্রায় আরও ৫০ জন কর্মচারী। সৌধ স্তম্ভসহ পুরো এলাকা ধুয়ে ফেলার পর শহীদ বেদী থেকে প্রধান ফটক পর্যন্ত পায়ে হাঁটার লাল ইটের হেরিংবন্ড পথকে লাল ও সাদা রঙের আঁচরে আরও দৃষ্টিনন্দন করে তোলা হয়েছে।

প্রস্তুতি দেখার জন্য সামরিক ও বেসামরিক প্রসাশনের কর্মকর্তারা এরই মধ্যে পরিদর্শন শেষ করেছেন। সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীসহ বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা শেষ করেছেন চূড়ান্ত মহড়া।

গণপূর্ত বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোসলেহ উদ্দিন আহাম্মদ বলেন, ভিভিআইপি থেকে শুরু করে সিকুয়েন্স অনুযায়ী জনসাধারণ শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। সেভাবে ম্যান্টেইন করার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি।

স্মৃতিসৌধ ঘিরে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

উল্লেখ্য, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃতে নয় মাস স্বশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের এই দিন বিকেলে রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে) হানাদার পাকিস্তানী বাহিনী যৌথবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করে। বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশের।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *