প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে উপবৃত্তি পাবে শিক্ষার্থীরা

প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে উপবৃত্তি পাবে শিক্ষার্থীরা

দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০ সালের ডিগ্রী স্নাতক বা (পাস) কোর্সের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট থেকে উপবৃত্তি প্রদান করা হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (পাস) ও সমমান ২০১৬/১৭ ২০১৭/১৮ এবং ২০১৮/১৯ শিক্ষাবর্ষের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান করা হবে।

২০২০ সালের ডিগ্রি উপবৃত্তির আওতাভুক্ত সেশন-

২০১৬-১৭ (৩য় বর্ষ)
২০১৭-১৮ (২য় বর্ষ)
২০১৮-১৯ (১ম বর্ষ) এর শিক্ষার্থীদের আবেদন গ্রহণ করা হবে।
আবেদন এর শেষ সীমা ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ পর্যন্ত
২০২০ সালের ডিগ্রী বা স্নাতক (পাস) উপবৃত্তি বিজ্ঞপ্তি

সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানান যাচ্ছে যে, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট দ্বারা ২০১৬-১৭, ২০১৭-১৮ এবং ২০১৮-১৯ (৩য় বর্ষ, ২য় বর্ষ, ১ম বর্ষ) শিক্ষা বর্ষের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (পাস) ও সমমান পর্যায়ে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান করা হবে।

উপবৃত্তি প্রাপ্তির জন্য শিক্ষার্থীকে যা যা করতে হবেঃ
প্রথমে শিক্ষার্থীকে এই ওয়েবসাইট এ প্রবেশ করতে হবেঃ http://estipend.pmeat.gov.bd. এর পর এখানে আপনাকে রেজিস্ট্রেশান করতে হবে।

ডিগ্রী উপবৃত্তি ২০২০
প্রথমে আপনার প্রথিস্থানের ধরন তারপর আপনার শিক্ষা বর্ষ নির্বাচন করতে হবে এর পর আপনার ডিগ্রি রেজিস্ট্রেশান নাম্বার লিখতে হবে এবং তারপর এইচএসসি রেজিস্ট্রেশন নম্বর যথাক্রমে এইচএসসি রোল নম্বর লিখতে হবে। এর পর আপনার সছল মোবাইল নাম্বার লিখতে হবে যেখানে একটি SMS আসবে এবং সব শেষে কাপচার দিয়ে নিবন্ধন এ ক্লিক করতে হবে।

দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সানুগ্রহ অভিপ্রায় অনুযায়ী ২০১২ সালে “প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট” গঠন করা হয় । প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট আইন, ২০১২ এর বিধান অনুযায়ী গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ০৫ (পাঁচ) সদস্য বিশিষ্ট “উপদেষ্টা পরিষদ”-এর সভাপতি । বিদ্যমান আইনের আওতায় গঠিত ২৬ (ছাব্বিশ) সদস্যবিশিষ্ট ‘ট্রাস্টি বোর্ড’-এ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী সভাপতি ।

ট্রাস্ট ফান্ড থেকে স্কুল/কলেজ/মাদ্রাসা/বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি, আর্থিক সহায়তা, অনুদান ও উচ্চ শিক্ষায় ফেলোশিপ প্রদান করা হচ্ছে । এতে করে দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীরা ডিগ্রী পর্যন্ত বিনা বেতনে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে । শিক্ষার্থীদের হাতে স্বল্প সময়ে, ঝামেলাহীনভাবে উপবৃত্তির অর্থ পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ই-স্টাইপেন্ড সিস্টেম বাস্তবায়ন করছে । এই পদ্ধতির ফলে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের সুবিধাজনক সময়ে, স্থানে এবং পছন্দমতো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে স্ব-স্ব ব্যাংক হিসাবে উপবৃত্তির অর্থ প্রদান নিশ্চিত করা হবে । শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বৃদ্ধি, ঝরে পড়া রোধ, শিক্ষার প্রসার, বাল্যবিবাহ রোধ, নারীর ক্ষমতায়ন ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নসহ দারিদ্র্য বিমোচনে ট্রাস্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Related articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *