সৌদিতে করোনাক্রান্ত বাড়ায় এবারের হজ অনিশ্চিত

সৌদিতে করোনাক্রান্ত বাড়ায় এবারের হজ অনিশ্চিত

দীর্ঘদিন লকডাউন ও কারফিউ শিথিল হবার পর সৌদি আরবে আশঙ্কাজনকহারে ফের বাড়তে শুরু করেছে করোনা সংক্রমণ। যেখানে ভাইরাসটির শিকার এক লাখের বেশি মানুষ। 

এমন অবস্থায় ইতিমধ্যেই জেদ্দাসহ অনেক স্থানে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে মসজিদে নামাজ। এবার সংশয় দেখা দিয়েছে আসন্ন হজ নিয়ে।

ইসলামী প্রজাতান্ত্রিক দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৪৫ জন মানুষ নতুন করে করোনার শিকার হয়েছেন। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ১ হাজার ৯১৪ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে আরও ৩৬ জনের। এ নিয়ে সেখানে প্রাণহানি বেড়ে ৭১২ জনে ঠেকেছে। যদিও আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৭২ হাজারের বেশি মানুষ।

প্রতিদিনেই করোনার এমন চিত্রে চলতি মাসের শেষভাগে এ বছর হজ আদৌ হবে কী-না তা নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা। তবে এখন পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় কিংবা বিভাগ কোনো ঘোষণা দেয়নি। যদিও, এর আগে মুসলিমদের হজ মুলতবি করার অনুরোধ জানায় তারা।

সবশেষ, গত দু’দিনে টানা ৩ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে দেশটিতে। আজ সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে, গত শনিবার থেকে আগামী ২০ জুন পর্যন্ত মক্কার প্রবেশপথ জেদ্দার সকল মসজিদে নামাজ আদায় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেইসাথে পরিবর্তন করা হয়েছে কারফিউয়ের সময়। এখন থেকে প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত ঘর থেকে বের হওয়া যাবে। এ সময়ের মধ্যেই সকল কাজ-কর্ম সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

সেই সাথে জেদ্দা অঞ্চলের জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনাও জারি করেছে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অফিস আদালতে, সরকারি-বেসরকারি সব জায়গায় কাজের জন্য উপস্থিত হওয়া যাবে না। হোটেল ক্যাফেতে অভ্যন্তরীণ সার্ভিস দেয়া বন্ধ থাকবে। কারফিউ চলাকালীন সময়ে এক শহর থেকে অন্য শহরে যাওয়া যাবে না। তবে অন্য সময়ে যেতে পারবে।

পাশাপাশি পাঁচ-ছয় জনের বেশি লোক জমায়েত হওয়া যাবে না, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার পাশাপাশি বাধ্যতামূলক ব্যবহার করতে হবে মাস্ক। ইতিপূর্বে যে সকল প্রতিষ্ঠান/পেশার লোকজনকে মুভমেন্ট করতে অনুমতি দেওয়া হয়েছে তারা আগের মতো চলা ফেরা করতে পারবেন।

এছাড়া, সৌদি আরবের অন্যন্য এলাকার পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেকোন সময় প্রয়োজনীয় নতুন নির্দেশনা দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *