আম্পানের কবলে বিভিন্ন জেলায় ৫ জনের মৃত্যু

আম্পানের কবলে বিভিন্ন জেলায় ৫ জনের মৃত্যু

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কবলে পড়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার রাত দশটা পর্যন্ত এ পাঁচ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। নিহতদের মধ্যে পটুয়াখালীর দু’জন, ভোলার দু’জন ও একজন চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের।

জানা যায়, পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলায় রাসেদ (৬) নামে এক শিশু ও কলাপাড়ায় শাহ আলম নামে সিপিপি’র এক কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। মারা যাওয়া ওই ব্যক্তি ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি দলের সদস্য শাহ আলম নৌকাযোগে একটি খাল দিয়ে যাওয়ার সময় দমকা হাওয়ায় নৌকাটি দুলতে থাকে। এতে তিনি পানিতে পড়ে যাওয়ার পর গামবুট ও গায়ে ভারি পোশাক থাকার কারণে আর উঠতে পারেননি।

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় সিদ্দিক ফকির (৭০) নামে এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। এছাড়া এক নারী গুরুতর জখম হয়েছেন। বুধবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার চর কচ্ছুপিয়া এলাকার রেইনট্রি গাছ ভেঙ্গে মাথায় পড়ে সিদ্দিক ফকির জখম হয়। তাকে তাৎক্ষণিক চরফ্যাশন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পথের মধ্যে তার মৃত্যু হয়। একই সময় চরফ্যাশন উপজেলার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ইয়ানুর বেগমের (৩০) গায়ে সুপারি গাছ ভেঙ্গে মাথায় আঘাত লাগে। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন তার মাথায় প্রায় ২৫/২৬টি সেলাই লেগেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে ভোলায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে পড়ে রামদাসপুর চ্যানেল ৩০ যাত্রীসহ একটি ট্রলার ডুবে একজন নিহত হয়েছে। ট্রলার ডুবিতে নিহত ব্যক্তির নাম রফিকুল ইসলাম। তার বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার মনিরাম এলাকায়। ওই ব্যক্তিসহ ৩০ যাত্রী ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে আসেন। তারা লক্ষ্মীপুর জেলার মজু চৌধুরী ঘাট থেকে ট্রলার যোগে মেঘনা নদী পাড়ি দিয়ে ভোলায় আসে। ওই ট্রলার রাজাপুর সুলতানীঘাটের কাছে এলে ট্রলারটি ডুবে যায়। ওই সময় স্রোতের টানে ভেসে যান রফিকুল ইসলাম। পরে তার লাশ উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ইলিশা ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পুলিশ পরিদর্শক রতন কুমার শীল।

আম্পানের প্রভাবে উত্তাল জোয়ারের স্রোতে সন্দ্বীপ উপকূলে সালাউদ্দিন নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নতুন চর থেকে মৃত সালাউদ্দিনের লাশ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। সালাউদ্দিন পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডের হোনাজীর বাড়ির আবুল কাশেমের পুত্র।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *