প্রায় পাঁচ কোটি মানুষের মাঝে ত্রান প্রদান সরকারের

প্রায় পাঁচ কোটি মানুষের মাঝে ত্রান প্রদান সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

করোনাসঙ্কট মোকাবেলায় মানবিক সহায়তা হিসাবে এই পর্যন্ত পৌণে পাঁচ কোটিরও বেশি মানুষের মাঝে ত্রান-সামগ্রী পৌছে দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার।

৬৪টি জেলা প্রশাসন থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, ১৫ মে পর্যন্ত সারা দেশে ত্রাণ হিসেবে এক লাখ ৬২ হাজার ৮১৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ২৫ হাজার মেট্রিক টন।

“এতে উপকারভোগী এক কোটি নয় লাখ ৩৫ হাজার ৭৮৬টি পরিবারের চার কোটি ৮৫ লাখ ২১ হাজার ৬৯১ জন মানুষ।”

মন্ত্রণালয় বলছে, ত্রাণ হিসেবে নগদ ৭২ কোটি ৩৩ লাখ ৭২ হাজার ২৬৪ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে বিতরণ করা হয়েছে ৫৫ কোটি ৫৮ লাখ ৭২ হাজার ৮৩৬ টাকা।

এছাড়া শিশুদের খাদ্য কিনতে নগদ ১৯ কোটি ১৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হলেও ১৪ কোটি ৩৭ লাখ ৫৬ হাজার ৭২৮ টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

“নগদ টাকায় উপকারভোগী পরিবার সংখ্যা চার লাখ ৪৭ হাজার ৬৯টি এবং লোক সংখ্যা নয় লাখ ৭৯ হাজার ৪৩৭ জন।”

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের প্রেক্ষাপটে সরকার গত ২৬ মার্চ থেকে সব অফিস আদালত বন্ধ রেখেছে, আগামী ৩০ মে পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা আছে।

এই সময় গণপরিবহনও বন্ধ থাকা রাখা হয়েছে এবং কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ এড়াতে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছে সরকার। ফলে বেশিরভাগ শ্রমজীবী কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

এই কর্মহীনদের পাশপাশি দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে তাৎক্ষণিক মানবিক সহায়তা হিসেবে বিতরণের জন্য সরকার ধাপে ধাপে নগদ টাকা এবং চাল বরাদ্দ দিচ্ছে।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *