গাজীপুরে মা ও তিন সন্তান হত্যার মূল হোতা গ্রেফতার।

গাজীপুরে মা ও তিন সন্তান হত্যার মূল হোতা গ্রেফতার।

গাজীপুরের শ্রীপুরে মা ও তিন সন্তানকে গলাকেটে নারকীয় হত্যাকাণ্ডের চার দিন পর পারভেজ (২০) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার তেলিহাটী ইউনিয়নের আবদার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই যুবককে আটক করা হয়।

আটক যুবক ওই এলাকার কাজিম উদ্দিনের ছেলে। আটকের পর পিবিআইয়ের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্বীকার করেছে পারভেজ। পরে স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পারভেজের বসতঘর থেকে রক্তমাখা কাপড়, স্বর্ণালঙ্কার ও মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা ২টি মোবাইল ফোনসেট উদ্ধার করা হয়।
পূর্বের তথ্য পর্যালোচনা করে গতকাল রবিবার রাতে পারভেজকে আটক করেন তাঁরা। আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা স্বীকার করে পারভেজ। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাকে নিয়ে অভিযান চালিয়ে পারভেজের বসতঘর থেকে রক্তমাখা কাপড় উদ্ধার করা হয়। ওই সময় তার ব্যবহৃত পায়জামার পকেট থেকে তিনটি গলার চেইন, নিহত স্মৃতি ফাতেমার কানের দুলসহ স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়। ওই সময় উদ্ধার করা হয় বসতঘরের মেঝে খুঁড়ে লুকিয়ে রাখা লুণ্ঠিত ২টি মোবাইল ফোনসেটও।
পিবিআইয়ের ধারণা পারভেজের সঙ্গে আরো সহযোগী ছিল। তবে হত্যাকাণ্ডের মূলহোতা পারভেজই।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে শ্রীপুরের তেলিহাটী ইউনিয়নের আবদার এলাকার দোতলা একটি বাড়ি থেকে মালয়েশিয়া প্রবাসী রেজোয়ান হোসেন কাজলের স্ত্রী স্মৃতি ফাতেমা (৩৮), তাঁর বড় মেয়ে নোরা (১৫), ছোট মেয়ে হাওয়ারীন (১১) ও একমাত্র ছেলে প্রতিবন্ধী সাদিলের (৮) গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। স্মৃতি ফাতেমা ইন্দোনেশিয়ান বংশোদ্ভূত।
পুলিশ জানায়,স্মৃতি ফাতেমা ও তাঁর দুই মেয়ের মরদেহ বিবস্ত্র অবস্থায় ছিল। প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করে,ধর্ষণের পর হত্যা করা হয় তাঁদের।

দেশ বাংলা নিউজ

দেশ বাংলা নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *